+1 vote
23 views
in খাদ্য ও পানীয় (Food & Drink) by (9 points)
আসসালামু আলাইকুম,
আমাদের বাসার কাছে একটা পুকুর আছে যেটাতে মাছ চাষ করা হয়।সমস্যা হল পুকুরে এলাকার ড্রেনের পানির লাইন আছে। মলমূত্র সব পুকুরে যায়। আবার বৃষ্টির সময় পুকুর প্রায় ভরে যায় পুকুরের একপাশে পাইপ দিয়ে তা আবার বর্ষার সময় পানি অন্য পুকুরে যায়। এই পুকুরে বৃষ্টির পানি ড্রেনের পানি দুটোই আছে। এই পুকুরের চাষকৃত মাছ কি খাওয়া জায়েজ হবে। আর পুকুর যদি পরিপূর্ণ বদ্ধ হয় এবং ড্রেনের লাইনও থাকে সেখানে মাছ চাষ করা হলে কি সে মাছ খাওয়া যাবে।

1 Answer

0 votes
by (59,800 points)
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।

জবাবঃ-

وَلَوْ أُرْسِلَتْ السَّمَكَةُ فِي الْمَاءِ النَّجِسِ فَكَبِرَتْ فِيهِ لَا بَأْسَ بِأَكْلِهَا لِلْحَالِ كَذَا فِي الْبَزَّازِيَّةِ اه
যদি নাপাক পানিতে মাছ বড় হয়,তাহলে সেই মাছকে বর্তমানে খাওয়া নাজায়েয।
(দুরারুল হুক্কাম শরহু গুরারিল আহকাম-১/২৮১)

الجواب عن قوله في حاشية الدرر، وينظر الفرق بين السمكة وبين الجلالة اهـ بأن تحمل السمكة على ما إذا لم تنتن ويراد بالجلالة المنتنة تأمل
অর্থাৎ নাপাক পানিতে মাছ বড় হওয়ার পর যদি মাছে কোনো প্রকার দুর্গন্ধ না থাকে, তাহলে তাহলে সেটা জায়েয।আর অন্যান্য প্রাণির বেলায় দুর্গন্ধযুক্ত হওয়ার কারণে প্রক্রিয়াকরণ ব্যতীত হারাম।(রদ্দুল মুহতার৬/৩০৭)


প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনী ভাই বোন!
নাপাক পানাতে মাছ থাকার ধরুণ যদি সেই মাছে দুর্গন্ধ চলে আসে,তাহলে সেই মাছ খাওয়া নাজায়েয ও হারাম।কিন্তু যদি দুর্গন্ধ চলে না আসে তাহলে তাতে রুখসত রয়েছে।ইচ্ছা করলে ভক্ষণ করা যেতে পারে।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

ﻓَﺎﺳْﺄَﻟُﻮﺍْ ﺃَﻫْﻞَ ﺍﻟﺬِّﻛْﺮِ ﺇِﻥ ﻛُﻨﺘُﻢْ ﻻَ ﺗَﻌْﻠَﻤُﻮﻥَ অতএব জ্ঞানীদেরকে জিজ্ঞেস করো, যদি তোমরা না জানো। সূরা নাহল-৪৩

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন উত্তর পাওয়া যায় কিনা। না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন।

Related questions

...