+1 vote
26 views
in সুন্নাহ-বিদ'আহ (Sunnah and Bid'ah) by (15 points)
আসসালামুয়ালাইকুম

আমি একজন স্কুল শিক্ষার্থী। আমি আগে আল্লাহর রহমতে নামাজের প্রতি খুব মনোযোগী ছিলাম। কিন্তু দিন যাচ্ছে ততই মনোযোগ ধরে রাখতে কষ্টটা বেশি হচ্ছে। বিশেষ করে ১২ রাকাআত সুন্নাতে মুআক্কাদাহ আর বিতর টা প্রায়সময়-ই ছুটে যায়। সমস্যাটার শুরু হয়েছে যখন থেকে স্কুল খুলেছে তার পর থেকে। স্কুল খোলার পর থেকে আমলের সংখ্যার সাথে আমলের যেই আনন্দ সেটাও ক্রমশ নিম্নদিকে ধাবমান। তার উপর যখন স্কুলে পরীক্ষা কিংবা ১ঃ৩০ পর্যন্ত ক্লাস হয়, এর পরে সুন্নাত নামাজগুলো পরা রীতিমতো মানসিক পরিশ্রমের আমার জন্য। সার্বিকভাবে,

(১) আমার এখন করণীয় কী? আমি কীভাবে আমার ১২ রাকআত সুন্নাত ও বিতর নামাজ পড়ার অভ্যাসটা পুনরায় গঠন করতে পারি?

(২) স্কুলে পরীক্ষার পরে মানে ১ঃ৩০ এর সময় মোটামোটি ক্লান্ত থাকি তখন কী সুন্নাত নামাজগুলো পড়া আবশ্যক আমার জন্য?

( আমার স্কুলে সহশিক্ষা বিদ্যমান )

1 Answer

0 votes
by (327,880 points)
জবাব
وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته 
بسم الله الرحمن الرحيم 


(০১)
পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের আগে-পরে বার রাকাত সুন্নাত। হাদিস শরিফে এসেছে, আয়েশা রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেন,

مَنْ ثَابَرَ عَلَى اثْنَتَيْ عَشْرَةَ رَكْعَةً بَنَى اللَّهُ عَزَّ وَجَلَّ لَهُ بَيْتًا فِي الْجَنَّةِ، أَرْبَعًا قَبْلَ الظُّهْرِ وَرَكْعَتَيْنِ بَعْدَ الظُّهْرِ، وَرَكْعَتَيْنِ بَعْدَ الْمَغْرِبِ، وَرَكْعَتَيْنِ بَعْدَ الْعِشَاءِ، وَرَكْعَتَيْنِ قَبْلَ الْفَجْرِ

যে ব্যক্তি দিবা-রাত্র বার রাকাত (সুন্নাতে মুআক্কাদা) আদায়ে অভ্যস্ত হয়ে যায় আল্লাহ তাআলা তার জন্য জান্নাতে একটি ঘর বানিয়ে রাখেন। চার রাকাত জোহরের ফরয নামাযের পূর্বে এবং দু’রাকাত জোহরের ফরয নামাজের পরে, দু’রাকাত মাগরিবের ফরয নামাজের পরে, দু’রাকআত ইশার ফরয নামাজের পরে এবং দু’রাকআত ফজরের ফরয নামাজের পূর্বে। (সুনানে নাসায়ী ১৭৯৫)

সুন্নতে মুয়াক্কাদা না পরলে কি গোনাহ ? এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন- 400

★প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই, 
বিনা ওযরে সুন্নাতে মুয়াক্কাদা নামাজ ছেড়ে দেওয়া মারাত্মক গুনাহ।
ওযর বশত কখনো কখনো সুন্নাতে মুয়াক্কাদা নামাজ ছেড়ে দেয়া যায়,তবে ছেড়ে দেওয়ার অভ্যাস গড়ে তোলা যাবেনা।
তাহলে গুনাহ হবে।       


★প্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই, 
আখেরাতে মহান আল্লাহর শাস্তির ভয়ে সুন্নাত ও বিতর নামাজ আদায় করবেন।
আপনি মসজিদে গিয়ে এসব নামাজ আদায় করবেন,তাহলে সুন্নাত ও বিতর নামাজ অন্যান্য মুছল্লিদের ন্যায় তাদের সাথে হয়ে আদায় করতে সুবিধা হবে,মনোযোগ ধরে রাখতে পারবেন।

(০২)
হ্যাঁ সেই সময়েও জোহরের সুন্নাত নামাজ পড়া আপনার উপর আবশ্যক।  


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

------------------------
মুফতী ওলি উল্লাহ
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...