0 votes
28 views
in সুন্নাহ-বিদ'আহ (Sunnah and Bid'ah) by (21 points)
আসসালামুয়ালাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারকাতুহ

আমি একজন স্টুডেন্ট।সম্প্রতি জানতে পেরেছি সাদাকাতুল ফিতর আদায় করা ওয়াজিব/সুন্নত।আমার বাবা আমাদের বাসার সবার টা দিয়ে দেন। আলহামদুলিল্লাহ।তবে আমিও চাচ্ছিলাম আমার নিজের টাকা(টিউশন করে যা পাই) তা থেকেও সাদাকাতুল ফিতর আদায় করবো। এটা বাসায় জানাবো না।অনলাইন এ দেখেছি এ ব্যবস্থা আছে।তাদের টাকা দিলে তারা ফিতর আদায় এর ব্যবস্থা করেন। আলহামদুলিল্লাহ।এখন আমি কি এমনটা করতে পারবো?সওয়াব এর আশায়?আমার বাবা আমার টা দিলো।আমিও আমার থেকে অন্য কোথাও দিলাম?

জানাবেন ইংশাআল্লাহ

1 Answer

0 votes
by (410,320 points)

ওয়া আলাইকুমুস-সালাম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু।
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।
জবাবঃ-
https://www.ifatwa.info/1811 নং ফাতাওয়ায় বলেছি যে,
ফিতরা কার উপর ওয়াজিব?
وهي واجبة على الحر المسلم المالك لمقدار النصاب فاضلا عن حوائجه الأصلية كذا في الاختيار شرح المختار، ولا يعتبر فيه وصف النماء ويتعلق بهذا النصاب وجوب الأضحية، ووجوب نفقة الأقارب هكذا في فتاوى قاضي خان.
ভাবার্থ-নিত্যপ্রয়োজনীয় ব্যয়ভার ব্যতীত প্রত্যেক  নেসাব (৭.৫ ভড়ি স্বর্ণ/৫২.৫ ভড়ি রূপা বা রূপার সমমূল্য) পরিমাণ মালের মালিক স্বাধীন মুসলমানের উপর সদকায়ে ফিতর ওয়াজিব।
এক্ষেত্রে বাড়ন্ত মাল হওয়া জরুরী নয়।শুধু তাই নয়, বরং এ পরিমাণ মালের মালিকের উপর  কোরবানী ও নিকটাত্মীয়দের ব্যয়ভার গ্রহণ ওয়াজিব। (ফাতাওয়ায়ে হিন্দিয়া-১/১৯২)(শেষ)

সুপ্রিয় প্রশ্নকারী দ্বীনি ভাই/বোন!
আপনার ফিতরা আপনার উপরই  ওয়াজিব হবে, যদি আপনি সাবালক হন,এবং আপনার নিকট নেসাব পরিমাণ মাল থাকে,ক্রমবর্ধমান হওয়া শর্ত নয়, বরং অক্রমবর্ধমান হলেও যাকাত ওয়াজিব হয়ে থাকে।

আপনার ফিতরা যদি আপনার বাবা আদায় করে দেন, এবং আপনার সম্মতি থাকে, তাহলে আদায় হয়ে গিয়েছে।এখন আপনি নফল বা মুস্তাহাব হিসেবে আবার ফিতরা আদায় করতে পারবেন।


(আল্লাহ-ই ভালো জানেন)

--------------------------------
মুফতী ইমদাদুল হক
ইফতা বিভাগ
Islamic Online Madrasah(IOM)

আই ফতোয়া  ওয়েবসাইট বাংলাদেশের অন্যতম একটি নির্ভরযোগ্য ফতোয়া বিষয়ক সাইট। যেটি IOM এর ইফতা বিভাগ দ্বারা পরিচালিত।  যেকোন প্রশ্ন করার আগে আপনার প্রশ্নটি সার্চ বক্সে লিখে সার্চ করে দেখুন। উত্তর না পেলে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনি প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ৪ টি প্রশ্ন করতে পারবেন।

বি.দ্র: প্রশ্ন করা ও ইলম অর্জনের সবচেয়ে ভালো মাধ্যম হলো সরাসরি মুফতি সাহেবের কাছে গিয়ে প্রশ্ন করা যেখানে প্রশ্নকারীর প্রশ্ন বিস্তারিত জানার ও বোঝার সুযোগ থাকে। যাদের এই ধরণের সুযোগ কম তাদের জন্য এই সাইট। প্রশ্নকারীর প্রশ্নের অস্পষ্টতার কারনে ও কিছু বিষয়ে কোরআন ও হাদীসের একাধিক বর্ণনার কারনে অনেক সময় কিছু উত্তরে ভিন্নতা আসতে পারে। তাই কোনো বড় সিদ্ধান্ত এই সাইটের উপর ভিত্তি করে না নিয়ে বরং সরাসরি মুফতি সাহেবদের সাথে যোগাযোগ করলে ভালো হয়। অন্যদিকে প্রতিমাসে একাধিকবার আমাদের মুফতি সাহেবগন জুমের মাধ্যমে সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। সেই ক্লাসগুলোতেও জয়েন করার জন্য অনুরোধ করা গেল। ক্লাসের সিডিউল: fb.com/iomedu.org

Related questions

...